Recents in Beach

সাকিবের প্রশংসায় ক্রিকেট বিশ্বের রথী-মহারথীরা যা বলছেন--



চলতি বিশ্বকাপে ব্যাটে বলে দারুন সময় কাটাচ্ছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ খেলোয়ার সাকিব আল হাসান। বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসে একমাত্র খেলোয়াড় সাকিব যে কিনা ক্রিকেটের তিন ফরমেটেই শীর্ষ স্থান দখল করে আছেন। সাকিবের পারফরম্যান্স এতটাই ভাল হচ্ছে যে, পুরো ক্রিকেট বিশ্বের রথী-মহারথীরা সাকিবের গুনগান করতে কার্পণ্য করছে না। আসুন দেখে নেয়া যাক সাকিবকে নিয়ে কি বলছেন তারা—

সাকিবের প্রশংসা করে ক্রিকেট কিংবদন্তী ব্রায়ান চার্লস লারা তার নিজস্ব ফেসবুক পেজে লিখেছেন, “কি অসাধারণ পারফর্মার সে!!”

ভারতের সাবেক ক্রিকেটার এবং জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার আকাশ চোপড়া টুইটারে লিখেছেন যে, “অসাধারণ পারফরম্যান্স। এবারের বিশ্বকাপটা নিজের করে নিয়েছে সে”।

বাংলাদেশের কাছে পরাজয়ের পর আফগান অধিনায়ক গুলবাদিন নাইব বলেছেন, “সাকিব আল হাসান ছিল দুর্দান্ত। সব কৃতিত্বই সাকিবের। সেই পার্থক্য করে দিয়েছে”।  

ভারতের ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারি লিখেছেন, “অবিশ্বাস্য খেলোয়ার, অবিশ্বাস্য রেকর্ড এবং অবিশ্বাস্য একজন মানুষ। সাবাস সাকিব। নাম্বার ওয়ান স্তম্ভ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। বাংলাদেশের ক্রিকেটে তার অবদান অতুলনীয়। হ্যাটস অফ তার প্রতি। ভবিষ্যতে যেন আরো রেকর্ড করতে পারে সেই কামনা করছি, যদিও ভারতের বিপক্ষে নয়। আল্লাহ তোমার মঙ্গল করুন বন্ধু”।

ভারতের কিংবদন্তি খেলোয়াড় সৌরভ গাঙ্গুলী বলেছেন, “সাকিবের মত খেলোয়ার ১০ হাজার বছরে একবার জন্ম নেয়”।  

সাকিবের দারুন ব্যাটিং দেখে নিজের অফিশিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ব্যাটসম্যান হার্শেল গিবস লিখেছেন, “সাকিব এই বিশ্বকাপের বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান। দারুন চিত্তাকর্ষক। আরেকটি সেঞ্চুরি আসছে”।

ভারতের ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে টুইট করে লিখেছেন যে, “আমি সত্যিই সাকিবের খেলা উপভোগ করছি, প্রয়োজনের জন্য দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য”।

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট লিজেন্ড টম মুডি টুইটারে লিখেছেন যে, “ভালো খেলেছ বন্ধু। তোমার খেলার এই ধারা অব্যাহত রাখো”।

ভারতের সাবেক ক্রিকেটার এবং বর্তমানে বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ সুনীল যোশী বলেন, “এটা খুব গর্বের যে, আমাদের এমন একজন খেলোয়াড় আছে বাংলাদেশ দলে। সে আমাদের জন্য মিস্টার কন্সিসটেন্ট। ব্যাট হাতে, বল হাতে কিংবা ফিল্ডিংয়ে”।

ভারতের ‘দ্য হিন্দু বিজনেস লাইন’ পত্রিকায় সাকিবকে সেনসেশনাল সাকিব হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। অনলাইন পত্রিকা ফ্রান্স-২৪ এর শিরোনাম, “বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সেমিফাইনালে খেলার আশা জাগিয়ে তোলার পর ভারতকে আপসেট করতে চান সাকিব”। লন্ডনের অনলাইন গার্ডিয়ানের শিরোনাম, “আফগানিস্তানকে ডুবিয়ে দিয়ে বাংলাদেশের আশাকে বাঁচিয়ে রাখলেন সাকিব আল হাসান”। বার্তা সংস্থা এএফপি’র শিরোনাম, “বাংলাদেশের সাকিব বিশ্বকাপের রেকর্ডের শীর্ষে”।

ভারতের সাবেক ক্রিকেটার মুরালি কার্তিক বলেন, “সাকিব শুধু যে এই বিশ্বকাপ বিবেচনায় সেরাদের তালিকায় তা নয়, সাকিব বরাবরই এক বা দুই নম্বরে আছেন অলরাউন্ডার তালিকায়”।

ভারতের বিখ্যাত টেস্ট ব্যাটসম্যান ভিভিএস লক্ষণ টুইটারে লিখেছেন, “সাকিব যেভাবে নিজের কাজটা নিপুণভাবে করে যায়, সেটা আমি ভালোবাসি। এত পাবার পরেও সাকিব বিনয়ী আর ভদ্র ক্রিকেটার। সাকিব একজন রোল মডেল”।

অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ক্রিকেটার মাইক হাসি বলেন, “সে খুবই কার্যকরী একজন ক্রিকেটার। আমি তার পুরো ক্যারিয়ারে এত ধারাবাহিকভাবে তাকে ভালো ব্যাটিং করতে দেখিনি। তার ইনিংসের শুরু থেকেই আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে শট খেলছে সে। সাকিব অবশ্য বোলার হিসেবেও কম যাননি। একের ভিতর দুই সাকিব”।

পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা মনে করেন, নিজ নিজ দলের পক্ষে কোহলি, রুট যে ভূমিকা পালন করে; বাংলাদেশের হয়ে একই কাজ করছে সাকিব।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে সাকিবের প্রশংসা করে ভারতের সাবেক খেলোয়াড় মোহাম্মদ কাইফ বলেন, সাকিবের কাছ থেকে দুর্দান্ত ইনিংস। খুব সম্ভবত আধুনিক যুগে সবচেয়ে উপযোগী খেলোয়াড়দের একজন সে

ভারতের সাবেক বোলার জহির খানের মতে, “এতদিন সাকিবকে বাংলাদেশ একজন অলরাউন্ডারের দৃষ্টিতে দেখে এসেছে। এখন এসে দেখা গেল ও যত বেশি না একজন অলরাউন্ডার তার চেয়ে বড় মাপের ব্যাটসম্যান। ও হচ্ছে এমন একজন ব্যাটসম্যান যে একই সাথে ভালো বোলিংও করতে পারে”।

অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি খেলোয়াড় রিকি পন্টিং বলেন, “বাংলাদেশের মধ্যে বিপদজনক হচ্ছে সাকিব। দীর্ঘদিন ধরে সে এই মঞ্চে ক্রিকেট খেলছে। ভিন্ন ভিন্ন পজিশনের ফাঁক গলে সে রান বের করতে পারে। স্কয়ার পজিশনে শট খেলার ব্যাপারে সে অনেক শক্তিশালী খেলোয়াড়। পাশাপাশি সে ভালো শট খেলতে পারে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্ট ও থার্ডম্যানেও”।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ